বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১১:৫২ অপরাহ্ন

নোটিশ
দেশ-বিদেশের সকল আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন অনলাইন ভার্সন ‘মদিনা কন্ঠ ’ ধন্যবাদ। দেশব্যাপি সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । 
ব্রেকিং নিউজ :
হিজলায় এছান বাবুর্চিকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন হিজলায় মেঘনা নদীতে তিন হাজার সাতশত বস্তা চিনি সহ ট্রলার ডুবি। ঝালকাঠিতে স্বামীর হাতে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, ঘাতক স্বামী আটক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা: র‌্যাবের এয়ার উইং পরিচালক ইসমাইল মারা গেছেন হিজলায় ৭ বছরের শিশু কন্যা পানিতে পড়ে মৃত্যু আজ পবিত্র আশুরা। হিজলায় মুসল্লিদের কষ্ট লাগবের জন্য (ডিপ টিউবওয়েল) প্রদান-এম হেলাল উদ্দিন হিজলায় হাফেজী মাদ্রাসায় কুরআন শরীফ বিতরণ করেন-এম হেলাল উদ্দিন আগামী সেপ্টেম্বর থেকে লোডশেডিং কমিয়ে আনার চেষ্টা-প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাজনৈতিক ভাষণ।

অনলাইন ডেস্ক::  আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। চলতি মাস স্বাধীনতা অর্জনের ৫০ বছর পূর্তির। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ রেসকোর্স ময়দানে স্বাধীনতার আহ্বান সংবলিত ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন।

রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ১৯ মিনিটের এক জাদুকরি ভাষণে বাঙালি জাতিকে স্বপ্নে বিভোর করেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তারপর সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ, ৯ মাসের লড়াই এবং স্বাধীনতা অর্জিত হয়। বঙ্গবন্ধুর কণ্ঠে ধ্বনিত হয়-“এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকনের ঐতিহাসিক গেটিসবার্গ ভাষণের সাথে তুলনীয় বক্তব্যে শেখ মুজিব বলেন, “রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরও দেব। এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব ইনশাল্লাহ। ঘরে ঘরে দূর্গ গড়ে তোল। তোমাদের যার যা কিছু আছে, তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবিলায় প্রস্তুত থাক।”

জাতীয় দিবস উপলক্ষে আজ রবিবার সরকারিভাবে কেন্দ্রীয় অনুষ্ঠানসহ সারা দেশের জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান কর্মসূচি নিয়েছে।

এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন। বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার ৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাজনৈতিক ভাষণ। লেখক ও ইতিহাসবিদ জ্যাকব এফ ফিল্ডের বিশ্বসেরা ভাষণ নিয়ে লেখা গ্রন্থে এই ভাষণ স্থান পেয়েছে। অসংখ্য ভাষায় অনূদিত হয়েছে বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণ। এটি ইউনেসকোর বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে, যা গোটা দেশ ও জাতির জন্য অত্যন্ত গর্বের।

ঙ্গবন্ধুর এ তেজোদীপ্ত ভাষণে গর্জে ওঠে উত্তাল জনসমুদ্র। লাখ লাখ মানুষের গগণবিদারী স্লোগানের উদ্দামতায় বসন্তের মাতাল হাওয়ায় সেদিন পতপত করে উড়ে বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত লাল-সবুজ পতাকা। লাখো শপথের বজ্রমুষ্টি উত্থিত হয় আকাশে। এদিন বেলা ৩টা ২০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু মঞ্চে আরোহণ করেন। ফাগুনের সূর্য তখনও মাথার উপর। মঞ্চে আসার পর তিনি জনতার উদ্দেশে হাত নাড়েন। তখন পুরো রেসকোর্স ময়দান লাখ লাখ বাঙালির ‘পদ্মা মেঘনা যমুনা, তোমার আমার ঠিকানা।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে ২০১৭ সালের ৩০ অক্টোবর বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘের শিক্ষা বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো। সংস্থাটি বিশ্বের ৭৮টি ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ দলিল, নথি ও বক্তৃতার মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণও অন্তর্ভুক্ত করে।

নিউজ টি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন:-


© All rights reserved © 2018 MadinaKantho.com
Design & Developed BY Madina Kantho
error: Content is protected !!