সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
“নিউজ মদিনা কন্ঠ” ওয়েব সাইটটি ভিজিট করার জন্য আপনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা।
ব্রেকিং নিউজ :
রাজাপুরে চুরি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার। হিজলায় কাজী তৌহিদুল আলম মাসুদ এর সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠান। হিজলায় কোস্টগার্ডের অভিযানে ৪০মন ঝাটকা ইলিশ জব্দ। হিজলায় ৬ জন্য ইউপি সদস্য প্রার্থী নিয়ে এক ব্যতিক্রম আলোচনা সভার আয়োজন। লালপুরে ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ি উপহার। নাঈম হাসান ঈমন কে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চায় এলাকার জনগণ। পীরগঞ্জে সাংবাদিকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। নাটোরে ভিক্ষুকের নাম ভিজিডি তালিকায় থাকলেও বরাদ্দের চাল না দেওয়ার অভিযোগ। নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার। হিজলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ উদ্বোধন করেন পংকজ নাথ।

বরিশালে আম গাছে মুকুলের দেখা মিলছে।

আমের মুকুল

মদিনা কন্ঠ:: চলছে শীতের ভরা মওসুম। অথচ এরই মধ্যে বরিশালে অনেক আম গাছে মুকুলের দেখা মিলছে। দেশি জাতের আম গাছে মুকুল দেখা গেছে। এতে খুশি চাষি ও বগানের মালিকেরা।

তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, ভরা শীতে গাছে মুকুল আসা বিষয়টি ভালো নয়। কারণ আগে ভাগে আসা মুকুল ঘন কুয়াশায় ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। ফলে আমের ফলন কমে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে। অবশ্য চাষিদের আশা, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ না ঘটলে এবার আমের বাম্পার ফলন হবে।

উপজেলার কয়েকটা গ্রামে সরেজমিনে দেখা যায়, আম গাছে মুকুল আসতে শুরু হয়েছে। সোনারাঙা সেই মুকুলের পরিমাণ কম হলেও তা সৌরভ ছড়াচ্ছে বাতাসে।

আমচাষি ও বাগান মালিকরা জানান, বিভিন্ন এলাকা জুড়ে শীতের তীব্রতা বিরাজ করলেও আগাম জাতের সব আম গাছে মুকুল আসতে শুরু করেছে। পৌষের শেষের দিকে গাছে মুকুল আসার লক্ষণ দেখা যায়। তাই মাঘের শুরুতে মুকুল ধরেছে। এ কারণে বাগানে পরিচর্যা বাড়িয়েছেন তারা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের (ডিএই) অতিরিক্ত পরিচালক মো. আফতাব উদ্দিন জানান, ডিসেম্বরের শেষ দিক থেকে জানুয়ারির মাঝামাঝি সময় অবধি বারোমাসী বা লোকাল জাতের আম গাছে মুকুল আসা শুরু হয়। তবে এবার জানুয়ারির শুরুতেই মুকুল আসা শুরু হয়েছে। শীতের তীব্রতা, তাপমাত্রা ও ঘন কুয়াশার কারণে গাছের মুকুল নষ্ট হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

এ বিষয়ে গৌরনদী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ সারমিন আক্তার বলেন, ঘন কুয়াশার কারণে দেশি জাতের বিশেষ করে আঁটি ও ফজলি আম গাছের মুকুল ছত্রাকে নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ঘন কুয়াশার কবলে না পড়লে, এসব মুকুলে ভালো আম হবে। তবে নিয়ম মাফিক মাঘের শেষ দিকে যেসব গাছে মুকুল আসে, তাতে আরো বেশি ফলন হয়।

“সকল আপডেট নিউজ পেতে পেইজে লাইক দিন”

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। প্রকাশিত লেখাটির আইনগত, মতামত বা বিশ্লেষণের দায়ভার সম্পূর্ণরূপে লেখকের । মদিনা কন্ঠ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এসব মন্তব্যের কোনো মিল নাও থাকতে পারে। লেখকের নিজস্ব মতামতের কোনো প্রকার দায়ভার “মদিনা কন্ঠ” নেবে না।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮ - ২০২১. নিউজ মদিনা কন্ঠ
Design & Developed BY Rahmatullah Palush
You cannot copy content of this page