শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
দেশ-বিদেশের সকল আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন অনলাইন ভার্সন ‘ মদিনা কন্ঠ’ ধন্যবাদ।
ব্রেকিং নিউজ :
বিশ্বনাথে প্রবাসী কল্যান সমিতির কর্তৃক কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্তদের নগদ অর্থ প্রদান বরিশালে বিসিক উদ্যােক্তা মেলা দীর্ঘ ৬ মাস বন্ধ থাকায় পথে বসেছে আয়োজকরা, চালু’র দাবি ঝালকাঠিতে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে আওয়ামীলীগ নেতা সিদ্দিক গ্রেফতার খুলনার আমিরপুরে হাতপাখার প্রার্থী মাওঃ মিছবাহ উদ্দিনের ব্যাপক গণসংযোগ হিজলায় ৬শত সাতচল্লিশ শিশু শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত অনিশ্চিত ব্রিজটি এখন যেন দুই গ্রামের মানুষের মরণফাঁদ মাওলানা আবদুর রাজ্জাক জেহাদীর ইন্তেকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর শোক ঝালকাঠি সরকারি কলেজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে ক্লাস বিশ্বনাথ উপজেলা জামাতের সাবেক নায়েবে আমির নিজাম সিদ্দিকী গ্রেফতার সেনহাটী ইউনিয়নে হাতপাখার প্রার্থীর গণসংযোগ

বরিশালের জাগুয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলেকে কুপিয়ে জখম

নিজস্ব প্রতিবেদক >> বরিশাল সদর উপজেলার জাগুয়ায় স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার ছেলেকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি আমির হোসেন ওরফে আলম মাস্টারের ছেলে আরাফাত হোসেনকে (২২) বৃহস্পতিবার সকালে পশ্চিম চন্ডিপুর জামে মসজিদ এলাকায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় একই এলাকার কতিপয় যুবক। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ছেলের ওপর হামলার কারণ হিসেবে আওয়ামী লীগ নেতা মাদক বিক্রির প্রতিবাদ করার কথা বললেও স্থানীয়রা জানিয়েছে, মেয়ে সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে স্থানীয় তোজাম্বর আলী মন্নানের ছেলে আক্তার হোসেন খোকা, মোসলেম হাওলাদারের জুয়েল হাওলাদার ও জিকু হাওলাদারের বিরোধ চলছিল। ধারণা করা হচ্ছে, এই বিরোধীয় জেরে যুবকের ওপর হামলা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে পশ্চিম চন্ডিপুর মসজিদের সম্মুখে সমবয়সি যুবকদের মধ্যে আকস্মিক সংঘর্ষ বাধলে পুরো এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এসময় আমির হোসেন ওরফে আলম মাস্টারের ছেলে আরাফাত হোসেনকে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এবং হামলাকারীরা ততক্ষণে পালিয়ে যায়। পরক্ষণে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালের নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও এই ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি।

আমির হোসেন ওরফে আলম মাস্টার জানান, এলাকায় কতিপয় যুবক মিলে মাদকের একটি সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। এই বিষয়টি প্রতিবাদ করে আসছিল তার ছেলে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে মাদক কারবারীরা হামলা চালিয়ে কুপিয়ে ফেলে যায়।

তবে স্থানীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, যাদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করা হচ্ছে তারা আরাফাতের বন্ধু হিসেবে পরিচিত। শোনা যাচ্ছে, এলাকার একটি তুচ্ছ ঘটনাকে নিয়ে নিজেরা সংঘর্ষে জড়িয়েছে।

কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফয়সাল আহম্মেদ জানিয়েছেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু এর আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে গেছে। এই ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

মন্তব্য প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। প্রকাশিত লেখাটির আইনগত, মতামত বা বিশ্লেষণের দায়ভার সম্পূর্ণরূপে লেখকের । মদিনা কন্ঠ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এসব মন্তব্যের কোনো মিল নাও থাকতে পারে। লেখকের নিজস্ব মতামতের কোনো প্রকার দায়ভার “মদিনা কন্ঠ‘র কর্তৃপক্ষ ” নেবে না।





© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮ - ২০২১.  মদিনা কন্ঠ
Design & Developed BY Rahmatullah Palush
error: Content is protected !!