মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১১:০২ অপরাহ্ন

নোটিশ :
“দৈনিক মদিনা কন্ঠ” ওয়েব সাইটটি ভিজিট করার জন্য আপনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা।
ব্রেকিং নিউজ :
প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের তালিকায় এক পরিবারের সবার নাম । রাতের আধারে ত্রাণ নিয়ে আমেনা বেগমের পাশে দাঁড়িয়েছেন রাজাপুর ইউএনও। আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে আবারও সংঘর্ষে শতাধিক আহত। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মানব সেবায় এগিয়ে আসলেন-মানবিক নেতা এম হেলাল উদ্দিন। আগৈলঝাড়ায় বসত ঘর পুড়ে ছাই কিন্তু পোড়েনি কোরআন শরিফ। নলছিটিতে ড্রেজার মালিককে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা। বাকেরগঞ্জে বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু। বরিশাল বিভাগীয় অনলাইন সম্পাদক-প্রকাশক পরিষদের এতিম ছাত্রদের নিয়ে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত ওসমানীনগরে সময় মতো ইফতারী না দেওয়াতে নববধূ হত্যা, স্বামী-শাশুড়ি গ্রেফতার। বরিশালের চন্দ্রমোহন এলাকায় কবরস্থানের জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ।

দেশের দ্বীনি মাদরাসাগুলোর বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে-পীর সাহেব চরমোনাই।

Rezaul

অনলাইন ডেস্ক:: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজউল করীম, পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, দেশের দ্বীনি মাদরাসাগুলোর বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। সারাদেশের কওমী মাদরাসাগুলো মানুষের মধ্যে ধর্ম ও নৈতিকতা শিক্ষা বিস্তারে দীর্ঘকাল যাবৎ প্রসংশনীয় ভুমিকা পালন করে আসছে। বিশেষ করে দেশের হাজার হাজার কওমী মাদরাসা সরকারের কোন রকম সাহায্য-সহযোগিতা ছাড়াই সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষের সহযোগিতায় ইসলামী শিক্ষা বিস্তার ও মানুষের নৈতিক উন্নয়নে বড় অবদান রেখে আসছে।

আজ এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, মাদরাসা পরিচালনার সিংহভাগ ব্যয় নির্বাহ হয় স্বচ্ছল ও বিত্তবান মানুষের যাকাতের অর্থে। স্বাভাবিকভাবেই অধিক সওয়াবের আশায় মানুষ রমজান মাসে তা পরিশোধ করে থাকেন। গত বছর রমজান মাসে লকডাউনের কারণে দেশের সবগুলো মাদরাসা বন্ধ ছিল। যে কারণে মাদরাসাগুলো আর্থিকভাবে অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এবারও একদিকে লকডাউন অপরদিকে সরকারি প্রশাসনের নানামুখি হয়রানীর কারণে মাদরাসাগুলো চরমভাবে বিপর্যয়ের মুখোমুখি দাড়িয়েছে। এমতাবস্থায় সরকারি প্রশাসনের নানামুখি হয়রানি বন্ধ না হলে দেশের হাজার হাজার কওমী মাদরাসার চিরতরে বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হতে পারে। যার ফলে লাখ লাখ আলেম যেমন বেকার হয়ে পড়বে, তেমনি দেশের ছাত্র- ছাত্রীদের বিশাল একটি অংশ ধর্মীয় শিক্ষা গ্রহণ থেকে বঞ্চিত হবে। মানুষের নৈতিক শিক্ষার বিকাশ বন্ধ হয়ে যাবে।

বিবৃতিতে পীর সাহেব বলেন, আমরা মনে করি সরকারের ভিতরে একটি ইসলামবিদ্বেষী অংশ চাচ্ছে দেশে সঠিক ইসলাম চর্চার বন্ধ হয়ে যাক। এটা দেশ, ইসলাম জনগণ ও দ্বীনের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র। সরকারকে ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষার প্রতি আন্তরিক হয়ে এ সুশিক্ষার বিরুদ্ধে যে কোন চক্রান্ত বন্ধের আহবান জানান।

এদিকে আজ বিকেলে স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনার লক্ষ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মজলিসে আমেলার এক জরুরি সভা পুরানা পল্টনস্থ কার্যালয়ে আজ বিকেলে দলের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, সহকারি মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম, সহকারি মহাসচিব ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, সহকারি প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা দেরাওয়ার হোসাইন সাকী প্রমুখ। চলমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং করণীয় নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। প্রকাশিত লেখাটির আইনগত, মতামত বা বিশ্লেষণের দায়ভার সম্পূর্ণরূপে লেখকের । মদিনা কন্ঠ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এসব মন্তব্যের কোনো মিল নাও থাকতে পারে। লেখকের নিজস্ব মতামতের কোনো প্রকার দায়ভার “মদিনা কন্ঠ‘র কর্তৃপক্ষ ” নেবে না।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮ - ২০২১. দৈনিক মদিনা কন্ঠ
Design & Developed BY Rahmatullah Palush
You cannot copy content of this page