শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
দেশ-বিদেশের সকল আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন অনলাইন ভার্সন ‘মদিনা কন্ঠ ’ ধন্যবাদ। দেশব্যাপি সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । 
ব্রেকিং নিউজ :
হিজলায় এছান বাবুর্চিকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন হিজলায় মেঘনা নদীতে তিন হাজার সাতশত বস্তা চিনি সহ ট্রলার ডুবি। ঝালকাঠিতে স্বামীর হাতে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, ঘাতক স্বামী আটক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা: র‌্যাবের এয়ার উইং পরিচালক ইসমাইল মারা গেছেন হিজলায় ৭ বছরের শিশু কন্যা পানিতে পড়ে মৃত্যু আজ পবিত্র আশুরা। হিজলায় মুসল্লিদের কষ্ট লাগবের জন্য (ডিপ টিউবওয়েল) প্রদান-এম হেলাল উদ্দিন হিজলায় হাফেজী মাদ্রাসায় কুরআন শরীফ বিতরণ করেন-এম হেলাল উদ্দিন আগামী সেপ্টেম্বর থেকে লোডশেডিং কমিয়ে আনার চেষ্টা-প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

ঝালকাঠিতে স্ত্রী’র হাতে স্বামী খুন, ৩জন গ্রেপ্তার

bd24

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির নলছিটিতে আবারো স্বজনদের হাতে স্বজন হত্যার ঘটনা ঘটেছে। পঙ্কজ চন্দ্র শীল নামে এক নরসুন্দরকে হত্যার ঘটনায় পুলিশ তাঁর স্ত্রী সোনালী শীলসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

রবিবার রাতে উপজেলার বারইকরণ গ্রাম থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে তারা হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেছে। পুলিশ জানায়, গত ১২ জুন রাতে জগন্নাথপুর গ্রামের পোনাবালিয়া বাজারের পাশের খাল থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় নরসুন্দর পঙ্কজ চন্দ্র শীলের (৩২) ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয় । এ ঘটনায় পরের দিন পঙ্কজের বাবা নরেন্দ্রনাথ শীল বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশের ধারণা তাকে হত্যা করে লাশ খালে ফেলে দেওয়া হয়। এরই সূত্রধরে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। রবিবার রাতে পুলিশ পঙ্কজ শীলের স্ত্রী সোনালীকে (৩২) বারইকরণ গ্রামে বাবার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সঙ্গে আরও জড়িত সোনালীর দুই চাচাতো ভাই বিশ্বজিত চন্দ্র শীল (২২) ও শুভ শীলকে (২০) গ্রেপ্তার করা হয়। তারাও প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে হত্যাকান্ডের ঘটনা স্বীকার করে।

নিহত পঙ্কজ চন্দ্র শীল ঝালকাঠি শহরের ফায়ার সার্ভিস মোড়ে একটি সেলুনে কাজ করতেন। সে শহরের বাহের রোড এলাকার নরেন্দ্রনাথ শীলের ছেলে। তিনি বারইকরণ শ্বশুর বাড়িতেই বসবাস করতেন। মাদকাসক্ত হওয়ার কারণে স্ত্রীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালো ছিল না বলেও জানায় পুলিশ।

নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতাউর রহমান জনান, মাত্র সাত দিনের মাথায় ক্লুলেস হত্যার রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে। আটককৃতরা আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিতে রাজি হয়েছেন।

নিউজ টি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন:-


© All rights reserved © 2018 MadinaKantho.com
Design & Developed BY Madina Kantho
error: Content is protected !!