রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ১২:৫০ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
দেশ-বিদেশের সকল আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন অনলাইন ভার্সন ‘দৈনিক মদিনা কন্ঠ’ ধন্যবাদ।
ব্রেকিং নিউজ :
বিশ্বনাথে ইভটিজিং করায় যুবককে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। হিজলায় গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী আমিনুল ইসলাম স্বপন চৌধুরী‘র জয়জয়কার। ঈশ্বরগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফিং। বাসায় ফিরেছেন ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান। শাহান আরা বেগম এর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মোনাজাত। গলাচিপায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপলক্ষে মতবিনিময় সভা। বিশ্বনাথে প্রবাসীদের নামে চত্বর, অনুদান দিলেন এমপি মোকাব্বির। নলছিটির মগড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিনের জয়জয়কার। মেহেন্দিগঞ্জে কলাগাছ খাওয়ার জেরে দুটি গরু নির্মমভাবে কুপিয়ে রক্তাক্ত করলো মেম্বারের ছেলে। তালতলীতে আগুনে পুড়ে গেল ১২ দোকান।

খাজা নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম মুছে দিয়েছে ছাত্রলীগ।

Khwaja Nazimuddin

অনলাইন ডেস্ক::  পাবনার ঈশ্বরদীতে বাংলাদেশ রেলওয়ে সরকারি নাজিম উদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের নাজিম উদ্দিনের নাম কালো কালি দিয়ে মুছে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।

গতকাল মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) বিকেলে ঈশ্বরদী পৌর সদরের শহরের পোস্ট মোড় থেকে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা কর্মীরা এ নামটি মুছে দেন। বাংলা ভাষার পরিবর্তে উর্দুকে একমাত্র রাষ্ট্রভাষা করার প্রস্তাবকারী পাকিস্তানের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন খাজা নাজিম উদ্দিন।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় ঈশ্বরদীতে পোস্ট অফিস মোড় থেকে কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মিছিল বের হয়। পরে আয়োজিত সমাবেশ থেকে পাবনার ঈশ্বরদীতে রেলওয়ে নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের নামকরণ পরিবর্তনের দাবি জানানো হয়।

ওই সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, এখনও পাকিস্তানি প্রেতাত্মা খাজা নাজিম উদ্দিনের নোংরা স্মৃতির স্বাক্ষর হিসেবে রেলওয়ে নাজিম উদ্দিন স্কুলটি নিয়ে ঈশ্বরদী তথা বাংলাদেশকে দুর্নাম বয়ে বেড়াতে হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে ছাত্রলীগ এই অপমান ও দুর্নাম সহ্য করবে না।

তারা বলেন, জাতির জনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রিয় বাংলাদেশে কোনো পাকিস্তানি প্রেতাত্মার সাক্ষী থাকতে পারে না।

পরে মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করে লোকো রোড রেলওয়ে নাজিম উদ্দিন স্কুলের সামনে বিক্ষোভ ও পথসভা করে। পথসভা চলাকালে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা জাতির কলঙ্ক অধ্যায় মুছে দেয়ার অংশ হিসেবে স্কুলের প্রধান ফটক থেকে নাজিম উদ্দিন নামটি কালো রঙ দিয়ে মুছে দেন।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল হাসান রনির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুমন দাসের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য দেন পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম শাওন, পৗর ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম শাওন, ঈশ্বরদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি খন্দকার মো. আরমান প্রমুখ।

এ সময় পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড ও ৭টি ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ১৯৪৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান গণপরিষদে উর্দূর পাশাপাশি বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবি তুললে এর প্রবল বিরোধিতা করেন পূর্ব বাংলার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিম উদ্দীন। সে বছরের ২১ মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ঘোষণা দেন ‘উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা।’

স্বাধীনতার পর অনেকবার রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে এই স্কুলের নাম পরিবর্তনের দাবি জানানো হলেও তারা কোনো উদ্যোগ নেন। রাষ্ট্রভাষা বাংলার শত্রু ঘৃণ্য সেই নাজিম উদ্দীনের নাম গত ৬৮ বছর ধরে ঈশ্বরদীবাসী বয়ে বেড়াচ্ছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। প্রকাশিত লেখাটির আইনগত, মতামত বা বিশ্লেষণের দায়ভার সম্পূর্ণরূপে লেখকের । মদিনা কন্ঠ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এসব মন্তব্যের কোনো মিল নাও থাকতে পারে। লেখকের নিজস্ব মতামতের কোনো প্রকার দায়ভার “মদিনা কন্ঠ‘র কর্তৃপক্ষ ” নেবে না।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮ - ২০২১. দৈনিক মদিনা কন্ঠ
Design & Developed BY Rahmatullah Palush