শনিবার, ৩১ Jul ২০২১, ১০:১৬ অপরাহ্ন

নোটিশ :
দেশ-বিদেশের সকল আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন অনলাইন ভার্সন ‘দৈনিক মদিনা কন্ঠ’ ধন্যবাদ।
ব্রেকিং নিউজ :

আগৈলঝাড়ায় কথিত তিন সাংবাদিক একটি এতিমখানায় দিনভর অবরুদ্ধ, মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছে।

মঞ্জুর লিটন, আগৈলঝাড়া প্রতিনিধিঃ বরিশালের আগৈলঝাড়ায় কথিত তিন সাংবাদিক একটি এতিমখানায় দিনভর অবরুদ্ধ থেকে অবশেষ মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রবিবার সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের পূর্ব সুজনকাঠী হাজী বাবন উদ্দিন নেছারিয়া এতিমখানায় দুটি মোটরসাইকেলে প্রবেশ করে অসৎ ধান্ধা নিয়ে তিন ব্যক্তি নিজেদের সাংবাদিক পরিচয়ে দিয়ে এতিমখানার বিভিন্ন তথ্য জানতে চায়। তাদের কথাবার্তায় অসংলগ্নতা দেখা দিলে এতিমখানার তত্বাবধায়ক তাৎক্ষনিক বিষয়টি পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও আগৈলঝাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাতকে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত এতিমখানায় গিয়ে তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা নিজেদের সাংবাদিক বলে দাবি করে। সাংবাদিক দাবী করা বাকেরগঞ্জের থানায় কৃষ্ণকাঠী গ্রামের মৃত আবুল কালাম গাজীর ছেলে গাজী আনোয়ার হোসেন (৪৭) নিজেকে বাংলা টিভি ৭১ডট কম, তার ছেলে একটি কলেজের ছাত্র গাজী আসাদুজ্জামান রাকিব (২২) নিজেকে বিশ্ব মানচিত্র ও পটুয়াখালীর মীর্জাগঞ্জ এলাকার ইসহাক হাওলাদারের ছেলে মো. ইয়াসিন হাওলাদার (২৮) নিজেকে এনপিএস নিউজ পোর্টালের ষ্ঠাফ রিপোর্টার বলে দাবি করে।

এসময় তাদের পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে তারা তা দেখাতে গড়িমসি করলে মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তোপের মুখে পরে তারা পরিচয়পত্র দেখাতে বাধ্য হয়। মেয়াদ উত্তীর্ন ওই পরিচয়পত্রে সম্পাদকের নম্বরে ফোন দিলেও কেউ ফোন রিসিভ করেনি। ভুয়া সাংবাদিক আটকের বিষয়টি মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পরলে স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত হন ওই মাদ্রাসায়।

এক পর্যায়ে তারা তাদের সাংবাদিক পরিচয়ের কোন সঠিক কোন প্রমান দেখাতে না পারায় বিষয়টি বাকেরগঞ্জের সিনিয়র সাংবাদিকদের অবহিত করা হয়। সন্ধ্যায় বাকেরগঞ্জের দুই সিনিয়র সাংবাদিকের উপস্থিতিতে কথিত তিন সাংবাদিক আর কোথাও সাংবাদিক পরিচয়ে তাদের হীন স্বার্থ ও জনগনের সাথে প্রতারণা করবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে ওই দুই সিনিয়র সাংবাদিকের জিম্মায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এতিমখানা কর্তৃপক্ষ

এদিকে বাকেরগঞ্জ উপজেলায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এরা আসলে সাংবাদিক নয়। ধান্ধাবাজ। সাংবাদিক পরিচয়ে বিভিন্ন স্থানে মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে আর্থিক সুবিধা আদায় করে আসছে। যা চাঁদাবাজির সামিল। এদের অনেকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এ ব্যাপারে এতিমখানা পরিচালনা পরিষদের সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত জানান, সাংবাদিক পরিচয়ধারী কথিত ওই তিন প্রতারককে তাদের স্থানীয় দুই সাংবাদিকে জিম্মায় দেয়া হয়েছে। তারা মুচলেকা দিয়েছে যে, সাংবাদিক পরিচয়ে তারা আর এহেন কাজ করবে না। করলে যে কেউ তাদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নিতে পারবেন।

আরোও পড়ুন:-

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা ফের হয়ে উঠছে করোনার ‘হটস্পট’।
পরিবহণ শ্রমিক গ্রেফতার, প্রতিবাদে অবরোধ সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক।
প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভুমিহীনদের গৃহ নির্মান কাজ পরিদর্শন করলেন উপ-পরিচালক।

মন্তব্য প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। প্রকাশিত লেখাটির আইনগত, মতামত বা বিশ্লেষণের দায়ভার সম্পূর্ণরূপে লেখকের । মদিনা কন্ঠ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এসব মন্তব্যের কোনো মিল নাও থাকতে পারে। লেখকের নিজস্ব মতামতের কোনো প্রকার দায়ভার “মদিনা কন্ঠ‘র কর্তৃপক্ষ ” নেবে না।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮ - ২০২১.  মদিনা কন্ঠ
Design & Developed BY Rahmatullah Palush
error: Content is protected !!